Menu

সত্যিকারের দেশপ্রেমিক হতে চাইলে…

নিউজ ডেস্কঃ
আপনাকে প্রশ্ন করা হলো, ‘আপনি দেশকে ভালোবাসেন?’ আপনি চোখ কপালে তুলে উত্তর দেবেন, অবশ্যই ভালোবাসি, কেন বাসবো না? হ্যাঁ, সত্যিই ভালোবাসি। যে দেশকে এত সংগ্রাম করে জয় করতে হয়েছে, লাখো জীবন বিলিয়ে দিতে হয়েছে দেশটির জন্মের জন্য- সে দেশের জন্য ভালোবাসা, প্রেম আপনাআপনিই চলে আসে। আমরা দেশপ্রেমী জাতি। সেটা আমরা সবসময় বোঝাতে ব্যস্ত।
কিন্তু দেশপ্রেম আছে, এটা মুখে বলে দিলেই শেষ? মনে, কর্মেও তো বোঝাতে হবে যে আমরা দেশকে ভালোবাসি। আমরা দৈনন্দিন জীবনযাপনে এমন অনেক কাজ করি যাতে করে দেশপ্রেমকে খর্ব করা হয়। আপনি দেশকে ভালোবাসতে চাইলে মানে দেশপ্রেমিক হতে চাইলে অবশ্যই এই বিষয়গুলো আপনাকে মনে রাখতে হবে-
সারাক্ষণ বলি দেশকে ভালোবাসি। এই দেশের সঙ্গে যে ভাষাও জড়িত সেটা বোধয় ভুলে যাই। কারণ এখন নিজের ভাষাকে পাশে রেখে আন্তর্জাতিক ভাষা চর্চা আর ব্যবহারেই আমরা বেশি অভ্যস্ত। এই আন্তর্জাতিক ভাষার যে প্রয়োজন নেই, তা তো নয়। বিদেশি ভাষা চর্চা, ব্যবহার করুন কিন্তু দেশি ভাষার সঙ্গে মিলিয়ে সেটাকে বিকৃত করবেন না। প্রয়োজনের বাইরে অন্য ভাষা ব্যবহার না করে সবসময় বাংলাভাষার চর্চা করুন।
অনেকের মধ্যে একটা ধারণা থাকে যে, এই দেশে থাকলে প্রতিষ্ঠিত হওয়া সম্ভব না। নিজ নিজ অবস্থানে থেকে সবারই প্রবণতা থাকে দেশের বাইরে চলে যাওয়া। অজুহাত, এই দেশে থেকে কিছুই সম্ভব না। আপনার যদি ভালো সুযোগ বা নিতান্ত প্রয়োজন পড়েই, সেক্ষেত্রে আপনি চলে যেতেই পারেন। কিন্তু আপনার যদি দেশেই ভালো সুযোগ থাকে তো বাইরে যাওয়ার খুব প্রয়োজন কী? মেধা আর শ্রমকে তো দেশেও কাজে লাগানো যায়। এটাতো দেশপ্রেমই।
আমাদের সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো আমরা অসম্ভব স্বার্থ নিয়ে পড়ে থাকি। এই স্বার্থের ভিড়ে দেশ বা দেশের মানুষকে নিয়ে ভাবার সময় বা ইচ্ছা আমাদের হয় না। এমনকি আমরা তো আপনজনদেরও ভুলতে বসি। কিন্তু স্বার্থপর হলে দেশ চলবে কীভাবে? আপনি একা ভালো থাকলে দেশ ভালো থাকবে না। দেশের ভালোর জন্য ভাবতে হবে, দেশের ক্ষতি হয় এমন কিছু করবেন না।
আমরা আমাদের অবস্থান নিয়ে বেশ ভাবি। একটা প্রবণতা সবারই থাকে, সজ্ঞানে বা অজ্ঞানে মানুষকে ছোট করে দেখা। বিশেষ করে আমাদের নিম্নপদস্থ লোকগুলোকে অপমান, অপদস্থ করতে আমরা দ্বিধা করি না। কিন্তু কেন? মানুষকে মূল্য দিলে সবকিছুকে মূল্য দেওয়া হয়। আপনি কাউকে ভালোবাসেন না বা অপমান করেন মানে আপনি কিছুকেই ভালোবাসতে জানেন না, দেশকেও না।
আমরা দিনকে দিন আধুনিক হচ্ছি। আধুনিকতার নামে ভুলে যাচ্ছি নিজেদের স্বকীয়তা, সংস্কৃতি, ঐতিহ্যকে। চলনে বলনে আর পোশাকে পাশ্চাত্য ঢং আনতে গিয়ে নিজেদের ঐতিহ্যকে ভুলতে বসি আমরা। পাশ্চাত্যের পোশাকগুলো এখন বেশি ভালো লাগে, কখন কোন ট্রেন্ড চলছে সেগুলো আমরা খুঁজে বের করি। অথচ দেশি ঐতিহ্যের পোশাক যে বেশি সৌন্দর্য এনে দেয়, এটা মাথায় থাকে না। বিজয়, স্বাধীনতা, ভাষার দিনে শুধু লাল-সবুজ পোশাক পরলেই দেশপ্রেম জাগ্রত হয় না, এটা মাথায় রাখবেন।
নিজের দেশকে আমরা মা মনে করি। সেই প্রিয় দেশটিকে ভালোবেসে ভালো কিছু করুন। দেশের মানুষকে ভালোবাসুন, অন্যের কাছে দেশকে কীভাবে সমৃদ্ধ করা যায় সেই চেষ্টা করুন। দেশের দুর্নাম বাইরে কখনো করবেন না। আর দেশ বা মানুষের মঙ্গল করতে না পারেন, ক্ষতি করবেন না কখনো। আর মনে রাখবেন দেশটা আপনার একার নয় তো, দেশটা সবার। নিজের মতো করে সব ভাববেন না।

August 2019
M T W T F S S
« Jul    
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  

Flag Counter