Menu

বাংলাদেশে ব্যবসা বাড়াতে আগ্রহী জাপান

৬২ শতাংশ জাপানি যারা বাংলাদেশে ব্যবসা করছে, তাদের মতে ২০১৯ সালে তাদের পরিচালন মুনাফা বাড়বে। যেটি এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় ২০ দেশ ও অঞ্চলের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ হবে বলে মনে করছেন তারা। সম্ভাবনাময় ব্যবসায়িক ক্ষেত্রের এই জরিপে বাংলাদেশের উপরে আছে কেবল লাওস। প্রতিবেশী মিয়ানমার, ভারত ও পাকিস্তান বাংলাদেশের পরে রয়েছে।
জাপানি বাণিজ্য উন্নয়ন সংস্থা জাপান ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড অর্গানাইজেশনের (জেট্রো) এক জরিপে এসব তথ্য উঠে এসেছে। জাপান-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (জেবিসিসিআই) গত ৩১ মার্চ রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে জরিপের ফলাফল তুলে ধরে জেট্রো এর পক্ষ থেকে দাইসুকি আরাই। জরিপটি করা হয়েছে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলোতে ব্যবসারত জাপানি কোম্পানিগুলোর ওপর। জরিপের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে গত ৯ অক্টোবর থেকে ৯ নভেম্বর পর্যন্ত।
ঢাকার গুলশানে জেট্রোর কার্যালয়ে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে এই জরিপটি তুলে ধরা হয়। জানা যায়, জরিপটি করা হয়েছে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলোর ওপর। জরিপের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে গত ৯ অক্টোবর থেকে ৯ নভেম্বর পর্যন্ত। বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বাজার বড় হওয়া এবং উৎপাদন খরচ কম হওয়াই বিনিয়োগ আগ্রহের কারণ বলে উল্লেখ করে জাপান।
জাপানিরা পণ্যের মান ঠিক রাখা ও কর্মীদের দক্ষতা নিয়েও সমস্যায় ভোগেন বলে উল্লেখ করেন দাইসুকি আরাই। তিনি বলেন, বাংলাদেশে প্রচুর শ্রমিক পাওয়া যায়। এটা শ্রম শিল্পের জন্য ভালো। তবে উচ্চ প্রযুক্তির কারখানার জন্য দক্ষ লোক দরকার।

শ্রমিকের দক্ষতা, বন্দরে সময় বেশি লাগা, কর প্রদানে জটিলতা, করপোরেট সুশাসনের অভাব ইত্যাদি সমস্যার ক্ষেত্রে উন্নতি না হলে জাপানি বিনিয়োগ পাওয়ার ক্ষেত্রে মিয়ানমার, লাওস ও কম্বোডিয়ার মতো দেশগুলোর চেয়ে বাংলাদেশ পিছিয়ে থাকবে বলে উল্লেখ করের দাইসুকি আরাই। তিনি এসময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করেন।

August 2019
M T W T F S S
« Jul    
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  

Flag Counter