Menu

চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল খাদ্য গুদামে অভিযান : কৃষকের নামে গম ঢোকানোর অভিযোগ

মোহাঃ আলী আশরাফ খোকন, নাচোলঃ
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার (৩ জুন) দিবাগত রাতে অভিযান চালানো হয়েছে। এ সময় খাদ্য গুদামে কৃষকের নামে গম ঢোকানোর অভিযোগে আনুমানিক ২৫ মেট্রিক টন গমসহ একটি ট্রাক জব্দ করা হয়। তবে খাদ্য গুদামের ভেতরে ঢুকলেও ট্রাক থেকে গম খালাস করা হয়নি।
অভিযানে অংশ নেন, নাচোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানা, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অন্তরা মল্লিক, এনএসআইয়ের উপ-পরিচালক মোরশেদ আলম, নাচোল থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা ও ওসি (তদন্ত) আবদুল হান্নান, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আজহারুল ইসলাম।
জানা যায়, আনুমানিক ২৫ মেট্রিক টন গমসহ একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো-ট-১৬-৭৬২৫) বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় নাচোল খাদ্য গুদামে প্রবেশ করে। গোয়েন্দা তথ্য ছিল, অবৈধভাবে কৃষকের নামে এই গমগুলো খাদ্য গুদামে ঢোকানো হচ্ছিল। তথ্যের ভিত্তিতে এই অভিযান চালানো হয়।
নাচোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানা জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে এই অভিযান চালানো হয়েছে। তিনি বলেন, যেসব কৃষকের নামে খাদ্য গুদামে এসব গম ঢোকানোর কথা বলা হয়েছে সেসব কৃষক কোনো গম দেননি। ট্রাকটিতে আনুমানিক ২৫ মেট্রিক টন গম রয়েছে বলে তিনি জানান।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরো বলেন, এ ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে রাতেই উপজেলার ইসলামপুর গ্রামে মেসার্স মিলন অটোরাইস মিলে অভিযান চালানো হয়। সেখানে সরকারি সিল মারা ২৩১টি বস্তা (৫০ কেজির) চালসহ ৯০০ খালি বস্তা পাওয়া যায়। সেগুলো জব্দ করে সেখানেই সংরক্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মিলন অটোরাইস মিলের বিরুদ্ধে মামলা হবে বলে রাতেই জানান ইউএনও সাবিহা সুলতানা। এ বিষয়ে রাত থেকে আজ বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত শওকত আকবর মিলনের মুঠো ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।
অন্যদিকে খাদ্য গুদামের ঘটনাটি তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অন্তরা মল্লিক।
উল্লেখ্য, নাচোল উপজেলার খাদ্য গুদামে সরকারিভাবে গম ক্রমের উদ্বোধন করা হয় গত ৩০ এপ্রিল। ২৮ টাকা কেজি দরে এবার উপজেলায় ২ হাজার ২৪৩ মেট্রিক টন গম সংগ্রহ করা হবে। এর মধ্যে বুধবার (৩ জুন) পর্যন্ত ১ হাজার ৪৫২ মেট্রিক টন গম সংগ্রহ করা হয়েছে। একজন কৃষক ১ মেট্রিক টন গম দিতে পারবেন। তবে ৩ মেট্রিক টনও দিতে পারবে মর্মে মৌখিকভাবে নির্দেশ রয়েছে বলে জানা গেছে।
বুধবার (৩ জুন) দিবাগত রাত দেড়টায় সরেজমিনে খাদ্য গুদামের ভেতর গমবোঝাই ট্রাকটি দেখা যায়। ট্রাকচালক রফিকুলের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গমবোঝাই ১০ চাকার ট্রাকটি সাপাহার থেকে এসেছে। ট্রাকটি সন্ধ্যার পর নাচোল খাদ্য গুদামে ঢুকে।
‘গম বোঝাই ট্রাক কিভাবে খাদ্য গুদামে প্রবেশ করল,’ সাংবাদিকদের এরকম প্রশ্নের জবাবে নাচোল খাদ্য গুদামের ওসিএলএসডি মনিরুজ্জামান জানান, ৮ জন কৃষকের নামে ট্রাক বোঝাই গমগুলো মিলন অটোরাইস মিলের শওকত আকবর মিলন পাঠিয়েছেন। তার দেয়া জাতীয় পরিচয়পত্রগুলো তালিকার সঙ্গে যাচাই করে মিল পাওয়া গেছে। তবে ‘গমগুলো কৃষকের দেয়া কিনা’ তা যাচাই করার জন্য সরাসরি কৃষকের সঙ্গে কথা বলেননি বলে জানান তিনি।
মনিরুজ্জামান জানান, এতগুলো কৃষকের সঙ্গে সরাসরি কথা বলা সম্ভব নয়। জাতীয় পরিচয়পত্রের সঙ্গে আমাদের কাছে যে তালিকা আছে, তার সঙ্গে যাচাই করে নেয়া হয়।
‘কৃষক তো একসঙ্গে এতগুলো গম ট্রাকে করে নিয়ে আসে না, তাও সন্ধ্যার পরে। তারপরও ট্রাকটি কিভাবে গুদামে এলো,’ এ প্রশ্নের উত্তরে মনিরুজ্জামান বলেন, ঊর্ধ্বতনের নির্দেশেই ট্রাক ভেতরে ঢুকেছে।

Flag Counter

December 2020
M T W T F S S
« Nov    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031