Menu

চাঁপাইনবাবগঞ্জের পলশা উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকের বিদায় সংবংর্ধা ও স্মরণ সভা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নে পলশা উচ্চবিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক মোঃ আবু বকর কে বিদায়ী সংবর্ধনা ও প্রয়াত শিক্ষক মোঃ আশরাফুল ইসলাম এর স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকালে পলশা উচ্চবিদ্যালয় মাঠে পলশা উচ্চবিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র সংগঠন (সা, ছা, স) প, উ, বি,এর অয়োজনে সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে অত্র স্কুলের ম্যানেজিং কমেটির সভাপতি মোঃ জুলফিকার আলির সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব রাখেন সাবেক ছাত্র নাসিম মোহাম্মদ তোফায়েন হোসেন ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বালুগ্রাম আদর্শ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মতিউর রহমান, বিশেষ অতিথি ছিলেন বালুগ্রাম আদর্শ ডিগ্রী কলেজের অবসার প্রাক্ত সহকারী অধ্যাপক মোঃ অজিজুর রহমান, বালিয়াডাঙ্গা ইসলামিয়া বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের অবসর প্রাক্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ হযরত আলী মাস্টার, পলশা উচ্চবিদ্যালয়ের
ভারপ্রাক্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ মুসলিম উদ্দীন পলশা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল হামিদ, বিদায়ী শিক্ষক মোঃ আবু বকর প্রয়াত শিক্ষক মোঃ আশরাফুল ইসলামের সহধর্মিণী রেহেনা ইয়াসমিন সহ অত্র প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষক ও শিক্ষিকা বৃন্দ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বালুগ্রাম আদর্শ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মতিউর রহমান, বলেন নিশ্চয় আপনি একজন আর্দশ শিক্ষক ছিলেন তাই আপনি এই স্কুলটিকে এতো সুন্দর করে গুছিয়েছেন। আপনাকে আমরা এমনকি আপনার হাতে গড়া সকল ছাত্রছাত্রি বিন্দু সবাই সদ্ধা ও ভালবাসার সাথে সরণ করবে। তিনি আারও বলেন একটা বাড়ি বা বিল্ডিং তৈরী করতে হলে তার ভিত্তি বা গোড়ার উপর নির্ভর করে ফাউন্ডেশন তৈরী হয়। তাই আপনাদরে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে বা স্কুলে বিশেষ করে গণিত ও ইংরেজি এমনকি বাংলা ব্যাকারনের প্রতি আরও নজর দেওয়ার কথা বলেন তিনি। কারণ ভিত্তি যদি শক্ত না হয়েলে ফাউন্ডেশন বড় করা সম্ভব নয় তাই শিক্ষাথীদের আনান্দের সাথে পাঠদান করতে হবে। শেষে তিনি উপস্থিত ছাত্রছাত্রীর অভিভাবকদের সদ্ধা যানান এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বালুগ্রাম আদর্শ ডিগ্রী কলেজের অবসার প্রাক্ত সহকারী অধ্যাপক মোঃ অজিজুর রহমান, বলেন একজন ছত্র বা ছত্রিকে নিয়ে তখন গর্ব হয় সে যখন বড় কোন অফিসার হয় তারচেয়ে বেশি গর্বিত হয় যখন কোন ছাত্রছাত্রী রাস্তাঘাটে পথে প্রান্তরে দেখা হলে স্যার বলে সদ্ধা করে। তাই আমাদের সবার উচিত নিজনিজ শিক্ষাগুরু ও শিক্ষকদের সর্বঅস্থায় সম্মান করা। তিনি ছাত্রছাত্রী দের বলেন কর্মরত থাকা অবস্থায় আবু বকর স্যারকে যে সদ্ধা সম্মান করেছো অবসারে যাওয়ার পরে তার যেন কমতি না হয়।

বিদায়ী শিক্ষক মোঃ আবু বকর বলেন আমি সর্বপ্রথম ৫ শতক জমি ২ জন শিক্ষক ও ৭০ জনের মত শিক্ষাথি নিয়ে এলাকায় একটি প্রতিষ্ঠান গড়া লক্ষে কাজ শুর করেছিলাম। আল্লাহর অশেষ রহমতে স্থানিয় জনপ্রতিনিধি ও জনগনের সহযোগিতায় আজ প্রতিষ্ঠানটি এতোদুর এসেছে। স্কুলে সবথেকে বেশি অবদান রায়েছে এই এলাকার জনগনের তারা কেউ বুদ্ধি দিয়ে কেউ শ্রমদিয়ে তাদের নিজের ছেলেমেয়ে কে স্কুলে পড়তে দিয়ে এমনকি সংগ্রাম করে তারা আমার সাথে কাজ করেছে। আজ আমি গর্বিত আজ আমাকে বিদায়ী সংবর্ধনা এবং প্রায়াত শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম স্যারের সরণে আজ আমার বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীতে পরিপূর্ণ। এমন আয়োজনে করেছে আমার ছাত্রছাত্রীরা। আমি তাদের জন্য প্রান ভরে দোয়া করি আল্লাহ তাদের মনে আসা যেন পূরণ করে এমনকি মানুষের মত মানুষ হয়ে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হতে পারে।

এড়াও সমাপনী বক্তব্য রাখেন ম্যানেজিং কমেটির সভাপতি মোঃ জুলফিকার আলি, স্মৃতিজড়িত কবিতা আবরিতি করেন অত্র প্রতিষ্ঠানের ছাত্র কবি মোঃ সমন রেজা, অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন অত্র প্রতিষ্ঠানে সবেক ছাত্র সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আল। আরও উপস্থিত ছিলে বর্তমান অধ্যায়ন রত ও সাবেক শিক্ষাথি বিন্দু। অনুষ্ঠানে দুই শিক্ষককে নিয়ে স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য শিক্ষাথিগন।শেষে বিদায়ী ও প্রয়াত শিক্ষক এবং দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় দোয়া করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন, ভারপ্রাপ্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল মান্নান।

Flag Counter

November 2020
M T W T F S S
« Jul    
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30