Menu

শিবগঞ্জে অপহরণের পর বিয়ে ও নির্যাতনের ঘটনায় থানায় অভিযোগ

প্রতিকী ছবিঃ

শিবগঞ্জ(চাঁপাইনবাবগঞ্জ)প্রতিনিধি: শিবগঞ্জে ৯ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে অপহরনের পর বিয়ে করে জামাই ও তার পরিবার শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করার ঘটনায় শিক্ষার্থীর মা শরিফা বেগম শিবগঞ্জ থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।

গত ২৮-১০-২০১৯খ্রী: তারিখে নির্যাতিত মেয়ের মা শরিফা বেগমের স্বাক্ষরিত থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবর আবেদন সূত্রে জানা গেছে গত ২৯-১০-১৮খ্রী:তারিখ দুপুর ১২টার দিকে ছত্রাজিতপুর ফাজিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ও ছত্রাজিতপুর গ্রামের জালাল উদ্দিন ও শরিফা বেগমের মেয়ে ৯ম শ্রেণীতে পড়–য়া শিক্ষার্থী সোনিয়া খাতুন কাশ শেষে বাড়ি ফিরার পথে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা একই উপজেলার দাইপুখিরিয়া ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামের মৃত নইমুদ্দিনের ছেলে রবিউল আওয়াল আখেঁর(২৩) ও তার সাথে থাকা মনিরুল, মোতাহার, মইদুল, মনিরুল ঈশাসহ আরো কয়েকজন জোরপূর্বক সোনিয়াকে অপহরণ করে। পরে গোপনে সোনিয়াকে জোর করে বিয়ে করে তাদের বাড়ি নিয়ে যায় এবং অবরুদ্ধ করে রাখে। ফলে সোনিয়া দীর্ঘ ৯মাস তার পিতা মাতার সাথে যোগাযোগ করতে পারেনি।অভিযোগ সূত্রে আরো জানা গেছে যে স্বামী ও শুশুর বাড়ির অন্যান্যদের নির্যাতন সইতে না পেরে তিন মাস আগে সুযোগ বুঝে সোনিয়া পিতা মাতার নিকট পালিয়ে আসে এবং তার নির্যাতনের বর্ণনা দেয়। সে বর্ণনা মূলক গত ২৮-১০-১৯খ্রী: তারিখে সোনিয়ার মা শরিফা বেগম থানায় উপস্থিত হয়ে লিখিত অভিযোগ দেয়। অভিযোগকারী শরিফা বেগম বলেন থানায় শালিসের মাধ্যমে সমাধান করে দিবে মর্মে অভিযোগটি মামলা হিসাবে গ্রহন করেননি তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই রাশিদা খাতুন। গত বৃহস্পতিবার থানায় শালিস বসার কথা ছিল কিন্তু প্রতিপক্ষ না আসায় শালিস হয়নি। তবে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শিবগঞ্জ থানার এস আই রাশিদা খাতুন বলেন, অভিযোগটির ব্যাপারে উভয় পক্ষের সাথে কথা হয়েছে। প্রতিপক্ষ কাজে ব্যস্ত থাকায় গত বৃহস্পতিবার আসেনি। আবারো সময় নির্ধারন করে উভয় পক্ষকে নিয়ে শালিসে বসবো। যদি এবারও প্রতিপক্ষ উপস্থিত না হয় তাহলে আইননুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

Flag Counter

December 2020
M T W T F S S
« Nov    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031