Menu

ফেসবুকে পরিচয়, দেখা করতে গিয়ে নির্যাতিত: ধর্ষণ মামলায় শিক্ষকসহ গ্রেফতার ২

Dhorson
রাজশাহী অফিস :
ফেসবুকে যোগাযোগের সূত্র ধরে রাজশাহীতে এসে এক নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় এক কলেজ শিক্ষকসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- বাগমারার শ্রীপুর বামনগর ডিগ্রী কলেজের গনিত বিভাগের শিক্ষক সামশুল আলম বাদশা ও নগরীর গোরহাঙ্গা এলাকার ইজিটাচ কম্পিউটার দোকানের মালিক আবু ফায়েজ নাহিদ। বাদশার বাড়ি রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার মচমইল এবং নাহিদের বাড়ি একই উপজেলার হাসনিপুর গ্রামে। তারা দুইজনেই রাজশাহী শহরের বোয়ালিয়া থানা এলাকায় বসবাস করেন।শাহমুখদুম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান জানান, ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জে। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিবিএ পাস করেছেন। কিছুদিন তিনি বেসরকরারী কোম্পানীতে চাকুরীও করেছেন। শিক্ষক বাদশার সঙ্গে তার ফেসবুকে পরিচয় হয়। গত ৩১ জুলাই চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহীতে আসেন তিনি। ফেসবুকে যোগাযোগের সূত্র ধরে তিনি বাদশার সাথে দেখা করেন। পরে বাদশা ও তার বন্ধু নাহিদ মিলে নগরের শাহমুখদুম থানার নওদাপাড়া এলাকার গ্রিন গার্ডেন নামের একটি বাগান বাড়িতে (গেস্ট হাউজ) নিয়ে যায়। সেখানে একটি কক্ষে রেখে প্রথমে বাদশা ও পরে নাহিদ ওই নারীকে ধর্ষণ করে। এরপর সন্ধ্যায় দিকে ওই ছাত্রীকে বাড়িতে রেখে চলে যায় তারা। পরে রাতে ওই নারী শাহমুখদুম থানায় গিয়ে ধর্ষণ মামলা করেন। মামলার প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার ভোরে গৌরহাঙ্গা এলাকা থেকে পুলিশ বাদশা ও নাহিদকে গ্রেফতার করে। বিকালে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। পুলিশ রিমান্ডে নিয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায়। আজ (বৃহস্পতিবার) পুলিশ তাদের রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে বলে জানিয়েছেন, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন তুহিন।
এদিকে, পুলিশের হাতে গ্রেফতারের পর বাদশা ও নাহিদ ঐ নারীর সাথে শারিরিক সম্পর্কের কথা স্বিকার করেছেন। তবে, তারা ধর্ষনের কথা অস্বিকার করেছেন। #

Flag Counter

October 2019
M T W T F S S
« Sep    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031