Menu

জনবল সংকটে জর্জরিত শিবগঞ্জের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বৃহত্তম উপজেলা হচ্ছে শিবগঞ্জ উপজেলা। যেখানে প্রায় ৮ লক্ষাধিক মানুষের বসবাস। এতো মানুষের বিপরীতে স্বাস্থ্যসেবার জন একটি মাত্র স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। আর এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটির স্বাস্থ্যসেবা চলছে মাত্র ৪জন মেডিকেল অফিসার দিয়ে। এ বিষয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তারা জানান, একাধিকবার সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেও কোন লাভ হয়নি । উপজেলার ৮ লাখ মানুষের জন্য মাত্র ৪ জন মেডিকেল অফিসার দিয়ে স্বাস্থ্য সেবা চলার ফলে এক দিকে যেমন হয়রানীর শিকার হচ্ছে স্বাস্থ্য সেবা নিতে আসা হাজার হাজার রোগী, অন্যদিকে তেমনি কর্মরত চিকিৎসকরাও চরমভাবে হিমশিম খাচ্ছে স্বাস্থ্য সেবা দিতে।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২১টি পদের জন্য কর্মরত আছেন মাত্র ১১জন। তারমধ্যে স্বাস্থ্য ও প:প: কর্মকর্তা ১জন, ভারপ্রাপ্ত আর এম ও ১জন, কনসালটেন্ড ৪ জন,
আর বাকী মাত্র ৪জন মেডিকেল অফিসার। দীর্ঘদিন যাবত শুন্য রয়েছে জুনিয়র কনসালটেন্ট (মেডিসিন)১জন, জুনিয়র কনসালটেন্ট (এ্যানেস)১জন, জুনিয়র কনসালটেন্ট (অর্থো)১জন, জুনিয়র কনসালটেন্ট(চক্ষু) ১জন, জুনিয়র কনসালটেন্ট (ইএনটি) ১জন, আর এম ও, এমও/আইএমও/ইএমও/পাথ: এ্যানেস/ সমমান সহকারী সার্জন(নবসৃষ্ট হোমিওপ্যাথিক পদে ৪জন, এ্যানেস ১জন, ই এম ও ১জন, প্যাথলজিষ্ট ১জন, সহকারী সার্জন ১জন, আই এম ও ১জন। ডেন্টাল সার্জন থাকলেও বর্তমানে প্রেষণে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে কর্মরত আছেন।

তাছাড়াও উপজেলায় ১৬টি উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের মধ্যে ৮টিতে মেডিকেল অফিসার পদ দীর্ঘদিন যাবত শুন্য রয়েছে। বাকী ৮টি সহকারী সার্জনের পদও দীর্ঘদিন যাবত শুন্য রয়েছে। উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র গুলি চলছে ফার্মাসিস্ট ও মেডিকেল সহকারী দিয়ে।

ভারপ্রাপ্ত আর এম ও ডা: আজিজুল হক জানান, উপজেলাটি ১৫টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা থাকলেও আমাদের গোমস্তাপুর ও ভোলাহাট উপজেলার চৌডালা ও বড়গাছী ইউনিয়নেরও রোগী দেখতে হয়। সবমিলিয়ে আমাদেরকে ১৭টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার রোগীদের সমস্যা মোকাবিলা করতে হয়। তিনি আরো বলেন, জন বল সংকটের কারনে আমাদেরকে দৈনিক ৬ ঘন্টার স্থলে ১০ থেকে ১১ঘন্টা রোগী দেখতে হয়। প্রতিদিন আউট ডোর ও জরুরী বিভাগ মিলে প্রায় ৭শ রোগী হয়। বিভিন্ন কারনে সিরিয়াস রোগীদেরকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে রেফার্ড করতে হয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন জাহিদ হাসান চৌধূরী বলেন, শুধু শিবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেই নয় জেলা সহ প্রত্যেক উপজেলায় একই সমস্য রয়েছে। তবে শিবগঞ্জে বেশী। এব্যাপারে আমি স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জেলা প্রশাসককে লিখিত ভাবে জানিয়েছি। দ্রুত সমাধান হবে বলে আমি আশাবাদী।

তিনি আরো বলেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মধ্যে বখাটাদের উৎপাত বন্ধ ও মাদকাসক্ততের আড্ডা বন্ধ করার জন্য আমি ইতিমধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার টি এম মোজাহিদুল ইসলামকে অবহিত করেছি। তিনি আমাকে কথা দিয়েছেন অল্প সময়ের মধ্যে এটি বন্ধ হবে। কর্তব্যরত চিকিৎসকদের কাছে বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের ভীড় জমানোর ব্যাপারে তিনি বলেন, ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধি সমিতির প্রধানদের সাথে আলোচনা করেছি। তারা শুধু সোমবার ও বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার পর শুধু ১ঘন্টা জন্য সাক্ষাত করতে পারবেন।

৪৩ চাঁপাইনবাবগঞ্জ ১শিবগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য ডা: সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল বলেন, বর্তমান সরকার শতভাগ স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে বদ্ধপরিকর। শিবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ব্যাপারে আমি স্বাস্থ্য বিভাগের মন্ত্রী, সচিব, মহাপরিচালক, ও জেলা প্রশাসকের সাথে আলাপ করেছি। আগামী সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে বিসিএস এর মাধ্যমে নিয়োগ পাওয়া নতুন ডাক্তারদের মাধ্যমে জন বল সংকট দূর করা হবে ইনশাল্লাহ। তাছাড়া আগামী সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে ১টি নতুন এ্যাম্বুলেন্স, ১টি ডিজিটাল এক্সরে মেশিন, ১টি আলট্রাসনো গ্রাফী মেশিন দেয়ার ব্যবস্থা সহ সকল সমস্যার সমাধান হবে।

Flag Counter

September 2019
M T W T F S S
« Aug    
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30